১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১রবিবার

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১রবিবার

আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যাবহার করে জলবায়ু পরিবর্তনের সতর্কতা প্রচারের অভিনব প্রচেষ্টা বিহারী যুবকের

জনসমক্ষে জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহতা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে অভিনব উদ্যোগ বিহারের ২১ বছর বয়সী সিদ্ধান্ত সারাংয়ের। আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে একটি মোবাইল আ্যপ্লিকেশন বানানোর পরিকল্পনা নেন সিদ্ধান্ত। যার মাধ্যমে সচেতনতা বার্তা পৌঁছে দেওয়া যাবে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

বর্তমানে জলবায়ু পরিবর্তন পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ সমস্যা। ইতিমধ্যে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলশ্রুতিতে কতোটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ নেমে আসতে পারে তা সম্পর্কে মানুষ কিছুটা অবগত হয়েছেন। একদিকে বিশ্ব উষ্ণায়ন দিন দিন বেড়ে চলেছে। অন্যদিকে জঙ্গল কেটে শিল্পাঞ্চল তৈরি হচ্ছে। যার ফলে, হিমবাহ গলতে শুরু করেছে মেরুবর্তী অঞ্চলে, সেই সঙ্গে জলবায়ুরও আকস্মিক পরিবর্তন লক্ষ্য করছেন বিশেষজ্ঞরা। পরিবেশ সংক্রান্ত নানা বিষয়ে ছোট থেকেই চর্চা চালিয়ে যেতেন বিহারের এই যুবক। এখন আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে সকল স্তরের মানুষকে সচেতন করতে চান তিনি।

 

আরও পড়ুন
নিউ মেক্সিকোতে ১৯৪৭ সালে সত্যিই কি এসেছিল ভিনগ্রহের প্রাণী! জেনে নিন আসল সত্যিটা

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের সংবাদ অনুযায়ী সিদ্ধান্ত বর্তমানে দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনর্গত সত্যবতী কলেজে ইতিহাস বিষয়ের স্নাতকার্থী। স্থানীয় ভোজপুরী ভাষায় তিনি একটি পডকাস্ট কিংবা অডিও বার্তা সম্প্রচারণ করতে চান। যার নাম দিয়েছেন ‘ধারতি মাইয়া’ বাংলায় যার অর্থ দাঁড়িয় ধরণী মাতা। ২১ বছরের ওই যুবক বিহার এবং উত্তরপ্রদেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলের মানুষের মধ্যে এই বার্তা পৌঁছে দিতে চান। তার উদ্দেশ্য প্রত্যন্ত গ্রামঞ্চলের প্রান্তিক মানুষদের জলবায়ুর পরিবর্তন আমাদের পরিবেশের পক্ষে কতোটা বিপজ্জনক, এবং কী পরিণতি হতে পারে আমাদের অবহেলার ফলে ইত্যাদি বিষয়ে অবগত করানো। ২০১১-এর সমীক্ষা অনুযায়ী প্রায় ৫১ মিলিয়ন মানুষ ভোজপুরী ভাষায় কথা বলেন। এটি ভারতে সবথেকে বেশী ব্যবহত ভাষার মধ্যে অষ্টম স্থানে রয়েছে এবং নেপালে তৃতীয় স্থানে।

 

“সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন, “জলবায়ু পরিবর্তন কঠিন বাস্তব। পরিবেশ বান্ধব কার্যকলাপের মধ্য দিয়ে জলবায়ু রক্ষা করা আমাদের অন্যতম প্রধান কর্তব্য।” এই অডিও সম্প্রচারণ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয়েছে। এবং আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে ২২টি আঞ্চলিক ভাষায় সম্প্রচার করার পরিকল্পনা আছে উদ্যোক্তাদের।

আরও পড়ুন
অনলাইন গেমের শিকার হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নিল ১৩ বছরের কিশোর

ছাত্রাবস্থায় এতগুলো ভাষায় সম্প্রচার করার মতো সঠিক পরিকাঠামো, আর্থিক স্বচ্ছতা বর্তমানে সিদ্ধান্তের নেই। কারণ সেক্ষত্রে প্রতিটি ভাষার অনুবাদক নিযুক্ত করতে হবে। তাই আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে এই কাজ সহজ করতে চান তিনি। ২০১৯ এ বিখ্যাত ডিয়ানা পুরস্কার প্রাপক সিদ্ধান্তের ভবিষ্যতে নানা পরিকল্পনা আছে। আপাতত চলতি বছরের মধ্যে তিনি ১ মিলিয়ন মানুষের কাছে পৌঁছতে চান তার বার্তা নিয়ে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!