১৩ জুন, ২০২১রবিবার

১৩ জুন, ২০২১রবিবার

৩০০০ বছরের প্রাচীন শহর মিলল মিশরের মাটির তলায়, উন্মোচিত এক নতুন ইতিহাস

সভ্যতার উন্নতি হওয়ার পর থেকেই মানুষ আবিষ্কার করে চলেছে ইতিহাসের নতুন নতুন অধ্যায়। মানুষের এই আবিষ্কারের নেশাতেই একের পর এক উঠে এসেছে চমকপ্রদ তথ্য। এই আবিষ্কারের ফলেই যে কোনো সময়ই মোড় ঘুরে যায় ইতিহাসের। আবার খুলে যায় ভাবনার নতুন নতুন দিগন্তে। সম্প্রতি ইতিহাসের এমনই এক মোড় ঘোরানো ঘটনার সাক্ষী হয়ে থাকল মিশর।

 

৩ হাজার বছরের পুরোনো এক শহরের সন্ধান পাওয়া গেলো মিশরের লাক্সার শহরে। ‘লাক্সার’স ভ্যালি অফ দ্য কিং’ শহরের বালির নীচে যে শহরটি খুঁজে পাওয়া গিয়েছে তার নাম আতেন। এই শহরটির আবিষ্কারের ফলে মিশরের ইতিহাসের এক নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে বলে দাবি করছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। মিশরের ইজিপ্সিয়ান আর্কিওলজিক্যাল মিশনের প্রত্নতত্ত্ববিদরা দাবি করেছেন এই ‘আতেন’ শহরটি ফারাও তৃতীয় আমেনহোতেপ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ফারাও আমেনহোতেপ মিশর শাসন করেছেন ১৩৯১ থেকে ১৩৫০ খ্রীস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত।

আরও পড়ুন
স্মরণ:বিদায়বেলাতেও নজির রেখে গেলেন মরণোত্তর দেহদান-অঙ্গদান আন্দোলনের পুরোধা ব্রজ রায়

৩০০০ বছরের প্রাচীন শহর মিলল মিশরের মাটির তলায়, উন্মোচিত এক নতুন ইতিহাস

প্রত্নতত্ত্ববিদরা আরও বলেছেন যে, আমেনহোতেপের শাসনকালে লাক্সর শহরের পশ্চিমপ্রান্ত ঘিরেই ছিল সেই সময়কার প্রশাসন এবং শিল্পকলার কাজকর্ম। সেই সঙ্গে ঐতিহাসিক মহলের দাবি যে মিশরের ফারাও তুতানখামেনের সৌধ আবিষ্কারের পর এই আতেন শহরের আবিষ্কারই দ্বিতীয় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আবিষ্কার। আতেন শহরের আবিষ্কার এবং তার অনুসন্ধানের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের অধায়পক বেস্টি ব্রায়ান।

 

তিনি বলেছেন, “আতেন শহরের আবিষ্কারে প্রাচীন মিশরের মানুষের জীবনযাত্রার অনেক নতুন তথ্য উন্মোচিত হতে পারে। শুধু আতেন নয়, বরং মিশরের বিভিন্ন জায়গায় গত কয়েক মাস ধরে যে প্রাচীন জিনিসপত্র আবিষ্কৃত হয়েছে, প্রাচীন মিশরের জীবন যাত্র সম্পর্কি আরও নানান তথ্য জানার সুযোগ হবে সেসবের সূত্র ধরে”।

আরও পড়ুন
শুধু করোনায় নয় মাস্ক পরার প্রচলন ছিল আজ থেকে ৩ হাজার বছর আগেও

৩০০০ বছরের প্রাচীন শহর মিলল মিশরের মাটির তলায়, উন্মোচিত এক নতুন ইতিহাস

অন্যদিকে এই ব্যাপারে মিশরের প্রত্নতাত্ত্বিক এবং পুরাতত্ত্ববিষয়ক প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী জাহি হাবাস জানিয়েছেন, ‘বহু পুরাতত্ত্ববিদ বিদেশ থেকে এই শহরের খোঁজে এসেছিলেন। কিন্তু কেউই সন্ধান পাননি। এই শহরটির রাস্তার দুপাশে ছিল বাড়ি। সেই বাড়িগুলির মধ্যে কিছু বাড়ির পাঁচিলের উচ্চতা ছিল প্রায় ১০ ফুটের মতো।

 

এছাড়াও একটি বিশাপ মাপের উনুনেরও সন্ধান মিলেছে এই শহরটির দক্ষিণ দিকে”। এই উনুনের কাজ সম্পর্কে ভাবনায় পড়েছেন ইতিহাসবিদরাও। তবে এই গবেষণার সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের ধারণা এখনও অনেক কিছু উন্মোচিত হওয়া বাকি এই শহরটির।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!