৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

ইউরোয় সোনার বুট রোনাল্ডোর, সোনার বল দোন্নারুমা’র, সেরা ডিফেন্স ইংল্যান্ডের

ইংল্যান্ডকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ৫৩ বছর পর ইতালি ইউরো কাপ জিতেছে এটা রবিবার রাতেই সকলে জেনে যান। ২.৭৮ গড়ে এবারের ইউরোয় মোট ৫১ টি ম্যাচে ১৪২ টি গোল হয়েছে। কারা কারা ব্যক্তিগত স্তরে এই ইউরোয় সেরার স্বীকৃতি পেলেন সেটাও আমরা জেনে নেব।

 

২০১৬ এর ইউরো জয়ী হিসেবে এবারে নিজেদের খেতাব রক্ষার লড়াইয়ে নেমেছিল পর্তুগাল। কিন্তু প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে ১-০ গোলে হেরে গিয়ে তারা আগেই বিদায় নেয়। কিন্তু ফাইনালের ৩ ম্যাচ আগে দল বিদায় নিলেও সোনার বুট জিততে অসুবিধা হল না ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। তার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি কোপা আমেরিকায় সবচেয়ে বেশি গোলদাতার সোনার বুটের পাশাপাশি টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে সোনার বল‌ও জিতে নিয়েছেন।

আরও পড়ুন
ইংরেজরা কোনোদিন আক্রমণ না করলেও এই দেশের নামকরণ হয় এক ইংরেজ সামরিক অফিসারের নামে

ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ইউরোয় চেক প্রজাতন্ত্রের প্যাট্রিক সিকের সঙ্গে ৫ টি গোল করে যুগ্ম সর্বোচ্চ গোলদাতা হলেও, একটি গোল অ্যাসিস্ট করার সূত্রে সর্বোচ্চ গোলদাতার সোনার বুট জেতেন। চেক প্রজাতন্ত্রের প্যাট্রিক সিক রুপোর বুট জিতে সন্তুষ্ট থাকতে বাধ্য হন। অপরদিকে ৪ টি গোল করে ফ্রান্সের করিম বেনঞ্জেমা ব্রোঞ্জের বুট জিতেছেন। অর্থাৎ ইউরো ফাইনাল খেলা দুই দল ইংল্যান্ড এবং ইতালির কেউ এই তালিকায় জায়গা করে নিতে পারেনি।

 

তবে এবারে সবাইকে চমকে দিয়ে ইউরোর সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়ে সোনার বল জিতে নিয়েছেন চ্যাম্পিয়ন ইতালির গোলরক্ষক দোন্নারুমা। যা বুঝিয়ে দিচ্ছে বিভিন্ন দলের ফরোয়ার্ডরা কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছিল গোল করার জন্য। অবশ্য এই বিচারে খুব একটা ভুল নেই। দোন্নারুমা’র জন্যই গ্রুপ লিগের ম্যাচে ইতালি একটিও গোল খায়নি। পাশাপাশি সেমিফাইনাল এবং ফাইনালে তাদের এই গোলরক্ষকের বিশ্বস্ত দুটি হাত তাদের টাইব্রেকারে জিতিয়েছে। ফুটবল বিশেষজ্ঞদের মতে ইতালির প্রাক্তন গোলরক্ষক জিয়ানলুইগি বুঁফো’র সুযোগ্য উত্তরসূরি দোন্নারুমা।

আরও পড়ুন
সোভিয়েতের বিরুদ্ধে লড়াই করা ইসমাইল খান হেরাতে এখন তালিবানদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রধান মুখ

ইউরোর সেরা তরুণ খেলোয়াড়ের স্বীকৃতি পেলেন স্পেনের পেড্রি। এই তরুণ প্রতিটি ম্যাচেই দলের মাঝে মাঠকে সচল রেখেছিলেন। এমনকি সেমিফাইনালে তার জন্য ইতালির ডিফেন্স বারবার পরাস্ত হয়েছে। বিভিন্ন দলের ডিফেন্ডাররা তাকে কড়া ট্যাকেল করলেও দমিয়ে রাখতে পারেননি।

 

এবারের ইউরোয় দলগত হিসেবে সবচেয়ে বেশি ১৩ টি করে গোল করেছে ইতালি ও স্পেন। এক্ষেত্রে ইতালি ফাইনাল খেললেও স্পেন সেমিফাইনালেই বিদায় নিয়েছিল। তাই তাদের কৃতিত্ব কিছুটা হলেও বেশি বলে মনে করছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা। সেইসঙ্গে সেরা ডিফেন্সের স্বীকৃতি পেয়েছে ইংল্যান্ড। তারা ৭ টি ম্যাচে মাত্র ২ টি গোল খেয়েছে। ফাইনালেও ইংল্যান্ডের ডিফেন্স ভাঙতে কালঘাম ছুটে গিয়েছিল ইতালির। চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে ইতালি পেল ১০ মিলিয়ন ইউরো। ইংল্যান্ডের ভাগ্যে জুটেছে ৭ মিলিয়ন ইউরো, দুই সেমি-ফাইনালালিস্ট স্পেন ও ডেনমার্ক ৫ মিলিয়ন ইউরো করে পেয়েছে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!