১৩ জুন, ২০২১রবিবার

১৩ জুন, ২০২১রবিবার

সাহারা মরুভূমিকে অস্তিত্বের সংকটে ফেলে দিল হঠাৎ জন্মানো ১৮০ কোটি গাছ! দুশ্চিন্তায় বিজ্ঞানীরা

“চেরাপুঞ্জির থেকে একখানি মেঘ ধার দিতে পার গোবি-সাহারার বুকে?” কবিতার এই লাইনে মরুভূমির ভয়ঙ্কর অবস্থা আমরা সকলেই জানি। আর বাঙালি মাত্রেই মরভূমি দেখতে ছুটে চলে যান রাজস্থানের মরু অঞ্চলে। এতদিন আমরা বিভিন্ন সাহিত্যে, গল্প, উপন্যাস, রহস্যরোমাঞ্চ কাহিনীতে সাহারা মরভূমির কথা শুনেছি। একরাশ অজানা রহস্য নিয়ে বছরের পর বছর মানুষের কাছে কৌতুহলের বিষয় থেকেছে সাহারা। এমনকী সিনেমাতেও প্রায়ই দেখতে পাওয়া গিয়েছে সাহারার ভয়াল এবং ভয়ঙ্কর রূপ। কিন্তু যদি শোনেন সাহারা মরভূমি হঠাৎ অরণ্যে পরিণত হয়ে গেছে তাহলে ধাক্কা খাবেন অনেকেই। ভাবছেন এ তো অবিশ্বাস্য ঘটনা। অবিশ্বাস্য হলেও একদম ফেলে দেওয়ার মতো নয় কথাটা।

 

মরুভূমিতে গাছ জন্মানোটা এমনিতে কোনো আলৌকিক ঘটনা নয় আবার ভয়েরও নয়। মরুভুমিতে কাঁটা গাছ জন্মাতে আগেও দেখা গিয়েছে, আবার ওয়েসিস বা মরুদ্যানে তো অল্পস্বল্প গাছ থাকেই। তবে মরুভূমি যদি নিয়মিতভাবে গাছ জন্মাতে থাকে তাহলে সেটা পরিবেশের জন্য খুব একটা ভালো খবরও নয় কিন্তু। বিভিন্ন পরিবেশবিদরা কিন্তু এই ঘটনার পেছনে কারণ হিসেবে দেখছেন আমাদের এই প্রিয় গ্রহের বদলে যাওয়া আবহাওয়াকেই। আর এই বদলে যাওয়া আবহাওয়ার কারণে শুধু মরুভূমিতেই নয় বরং বরফের চাদরে ঢাকা শীতল আন্টার্টিকাতেও জন্মাচ্ছে প্রচুর গাছপালা। আর এর ফলে যে পরিণাম হতে পারে তা নিয়ে যথেষ্ট চিন্তিত আবহাওয়াবিদ এবং পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।

আরও পড়ুন
একসময়ে পৃথিবীর সবচেয়ে সমৃদ্ধশালী নগর বর্তমানে পরিণত হয়েছে একটি ধুঁকতে থাকা দারিদ্র শহরে!

সাহারা মরুভূমিকে অস্তিত্বের সংকটে ফেলে দিল হঠাৎ জন্মানো ১৮০ কোটি গাছ! দুশ্চিন্তায় বিজ্ঞানীরা
মরোক্কোয় সাহারা মরুভূমিতে মরুবৃক্ষ

আর এর মধ্যেই স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া একটি ছবি রাতের ঘুম কেড়ে নিয়েছে পরিবেশবিজ্ঞানীদের। ওই ছবি অনুযায়ী সাহারা মরুভূমির ধূ ধূ বালিয়াড়িতে প্রচুর গাছের সমারোহ দেক্তে পাওয়া যাচ্ছে। স্যাটেলাইটের মাধ্যমে তোলা ওই ছবি দেখে বিজ্ঞানীদের অনুমান পশ্চিম আফ্রিকার এই সাহারা মরুভূমিতে প্রায় ১৮০ কোটি গাছ গজিয়েছে।

 

সাহারা মরুভূমি নিয় গবেষণা করা একটি গবেষক দলের নেতৃত্বে থাকা কোপেনহেগ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-বিজ্ঞানী অধ্যাপক মার্টিন ব্র্যান্ড সম্প্রতি জানিয়েছেন যে তাদের এতদিন কোনো ধারণাই ছিল না যে সাহারা মরুভূমিতে এত গাছ জন্মায়। স্যাটেলাইটের ওই ছবি হাতে আসায় তারা যৎপরনাই আশ্চর্য হয়েছেন। সাধারণত মরুভূমিতে উদ্ভিদশূন্য রুক্ষ স্থান বেশি পরিমাণ থাকলেও সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হল সাহারার বালির নীচেও জন্মাচ্ছে সবুজ উদ্ভিদ। তবে মার্টিন ব্র্যান্ডের মতে সাহারা মরুভূমিতে এইভাবে গাছ আবিষ্কার হওয়ায় তা পরিবেশবিদদের গবেষণায় অনেক লাভ পাওয়া যাবে। এর থেকে আরও নিখুঁত এবং নিশ্চিতভাবে সারা বিশ্বে কতটা পরিমাণে কার্বণ জন্মেছে তারও হিসেব পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুন
কলকাতার জনারণ্যে লোকচক্ষুর আড়ালেই অদ্ভুতভাবে পালিত হয় চিনাদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া

সাহারা মরুভূমিকে অস্তিত্বের সংকটে ফেলে দিল হঠাৎ জন্মানো ১৮০ কোটি গাছ! দুশ্চিন্তায় বিজ্ঞানীরা
উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়া সাহারা বুকে ১৮০ কোটি গাছ

অন্যদিকে ন্যাশনাল এয়ারোনটিকস অ্যাণ্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা নাসার এক পরিবেশ বিজ্ঞানী জেস মেয়ারের মতে সাহারার বুকে এইভাবে সবুজ গাছ জন্মানোর তথ্য পরিবেশের সংরক্ষণ এবং জলবায়ুর পরিবর্তন আটকানোর ক্ষেত্রেও অনেক বেশি সাহায্য করবে। মার্টিন ব্র্যাণ্ডের আরও ধারণা যে আগামি এক বা দুই কিংবা দশ বছর পর যদি আবারও স্যাটেলাইট থেকে ছবি পাওয়া যায় তাহলে তাদের পক্ষে মরুভূমির এই পরিবর্তন লক্ষ্য করাটা আরও সহজ হয়ে যাবে। মার্টিন ব্র্যান্ড এবং তার পুরো দলের সাহারার মতো এই বিশাল মরুভূমির বুকে সবুজ গাছের খোঁজ করে তার হিসেব রাখার কঠিন কাজ করতে গিয়ে যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হয়েছে।

 

 

মার্টিন ব্র্যাণ্ড স্বয়ং প্রায় ৯০ হাজার গাছকে আলাদাভাবে খুঁজে বের করে চিহ্নিত করেছেন। ব্র্যাণ্ড জোর দিয়েছেন এই সমস্ত গাছেদের শ্রেণিবিভাগের উপরও। আর এই শ্রেণিবিভাগ করার জন্য ব্র্যাণ্ডের পুরো গবেষক দলটিকেই আলাদা করে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল।ব্র্যাণ্ডের দলের সমীক্ষা ছাড়াও অন্য একটি দলও প্রায় ১১ হাজার ছবি নিয়ে খুঁটিয়ে পরীক্ষা করে একটি সমীক্ষা করেছিল। সম্প্রতি বিখ্যাত নেচার পত্রিকাতেও এই সমীক্ষাটি প্রকাশিত হয়েছে। আর এই সমীক্ষার ফলাফলও ইঙ্গিত দিচ্ছে রোমাঞ্চকর রহস্যে ঘেরা সাহারার বুকে সবুজ গাছের বিশাল সমারোহের দিকেও।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!