৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

দেশের সেনাবাহিনীতে অতি গুরুত্বপূর্ণ নতুন একটি পদ তৈরি করলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম

উত্তর কোরিয়ার সামরিক কাঠামোয় বড়সড় রদবদল হতে চলেছে। সে দেশের শাসক কিম জং উনের পরিকল্পনাতেই রদবদল হচ্ছে বলে খবর। প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর শনিবার এই উদ্দেশ্যে উত্তর কোরিয়ার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা কমিশনের জরুরি বৈঠক ডেকেছেন কিং জং উন। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে দেশের সেনাবাহিনীতে সেকেন্ড ইন কমান্ড নামে একটি নতুন পদ তৈরি করা হবে। এটি কার্যত সেনাবাহিনীর দ্বিতীয় সর্বাধিনায়কের পদ হবে। অর্থাৎ এই পদে যে বসবে সেই ব্যক্তি বকলমে কমিউনিস্ট শাসিত এই দেশটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর হয়ে উঠতে পারে।

 

জল্পনা তৈরি হয়েছে কিম হঠাৎ করে এরকম একটি নতুন শক্তিশালী পদ কেন তৈরি করতে চাইছেন। উত্তর কোরিয়া বিশেষজ্ঞদের অভিমত সেনাবাহিনীর কার্যকারিতা আরও বাড়াতে সম্ভবত এরকম একটি পদ তৈরি করে নিজের ঘনিষ্ঠ কোন‌ও ব্যক্তিকে বসাতে চাইছেন কিম। সেক্ষেত্রে তিনি অনেক বেশি সাধারণ প্রশাসনিক কাজে নজর দিতে পারবেন।

আরও পড়ুন  
পাঞ্জাব নির্বাচনে মায়াবতীর দলের সঙ্গে জোট বেঁধে লড়াই করবে অকালি দল

দক্ষিণ কোরিয়া সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর উত্তর কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড পদে জো-উং-ওন অথবা কিম-তক-হুন’কে বসিয়েছেন কিম। এই দুজনেই উত্তর কোরিয়ার শাসক কিমের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

 

জো-উং-ওন উত্তর কোরিয়ার অত্যন্ত প্রভাবশালী একজন রাজনীতিবিদ। ৬০ বছর বয়সী এই ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরে উত্তর কোরিয়ার শাসকদল ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক পদে আছেন। স্বাভাবিকভাবেই কিম ঘনিষ্ঠ এই নেতাকে সেকেন্ড ইন কমান্ড পদে বসানো হয়েছে বলে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

 

অপরদিকে কিম-তক-হুন’কে নিয়েও জল্পনা যথেষ্ট ডালপালা মেলছে। কিম ঘনিষ্ঠ এই ব্যক্তি উত্তর কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী পদে আছেন বলে জানা গিয়েছে। তাকেও সেনাবাহিনীর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পদে বসানো হতে পারে বলে জল্পনা তৈরি হয়েছে।

 

তবে উত্তর কোরিয়া বিশেষজ্ঞদের একটি অন্য বিষয় ভাবাচ্ছে। কারণ এতদিন মনে করা হতো কিম জং উনের পর সে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন হলেন কিমের বোন কিম ইয়ো জং। সেক্ষেত্রে বোনকে বাদ দিয়ে এরকম ক্ষমতার আরেকটির দ্বিতীয় ভরকেন্দ্র তিনি কেন তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিলেন তা নিয়ে যথেষ্ট জল্পনা তৈরি হয়েছে। কেউ কেউ মনে করছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিদের মধ্যে যাতে ক্ষোভ তৈরি না হয় তাই ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ করছেন কিম। আবার কারও মতে এই রাষ্ট্র প্রধানের রণকৌশল এত সহজে অনুমান করা সম্ভব নয়। তিনি হয়তো কোন‌ও কিছু চিন্তা ভাবনা করেই এরকম একটি চাল চালার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!