১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১রবিবার

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১রবিবার

অলিম্পিকে এবার চড় কান্ড! জার্মান প্রতিযোগীকে অনুপ্রাণিত করতে চড় মেরে বিতর্কে কোচ

টোকিও অলিম্পিকে এবার চড় কান্ড। এই ঘটনার ফলে রীতিমতো সতর্কিত হতে হল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে।ঘটনাটি ঘটেছে জুডোর আসরে। মহিলা জুডোর ৬৩ কেজি বিভাগের রাউন্ড ৩২ এর ম্যাচে ম্যাটে পা দেওয়ার আগে জার্মানির জুডো তারকা মার্টিনা ত্রাজদসকে অনুপ্রাণিত করার জন্য তার কোচ ক্ল‌উডিউ পুসা তাকে ধরে ভালোমতো ঝাঁকিয়ে দেন এবং দুই গালে চড় মারেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিতর্ক তৈরি হয়।

 

আন্তর্জাতিক যুব ফেডারেশন জার্মানির ঐ কোচকে তার আচরণের জন্য ইতিমধ্যেই সতর্ক করে দিয়েছে। সেই সঙ্গে তারা ট্যুইট করে দাবি করে জুডো যেহেতু একটি শিক্ষামূলক খেলা তাই সেখানে এই ধরনের আচরণ কোনমতেই সমর্থন করা যায় না। আন্তর্জাতিক জুডো ফেডারেশন জার্মান কোচের এই আচরণকে জুডোর মূল নীতির পরিপন্থী হিসেবে চিহ্নিত করে।

আরও পড়ুন
যে ক’টি ডিম ফাটলো সবকটির ভিতরে দুটি কুসুম, বিরল ঘটনার সম্মুখীন লিভারপুলের ভদ্রমহিলা

কিন্তু যাকে চড় মারার ঘটনায় এত কাণ্ড সেই মার্টিনা ত্রাজদস এতে তার কোচের বিন্দুমাত্র দোষ দেখছেন না। বরং তিনি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে জানান কোচ তার কথা মেনেই তাকে ম্যাচ শুরুর আগে এইভাবে অনুপ্রাণিত করেছেন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সবাই যে চড় মারার ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোরগোল ফেলে দিয়েছে তা আসলে ম্যাচ শুরুর আগে একজন ক্রীড়াবিদকে অনুপ্রাণিত করার এক ধরনের উপাচার। অনেক রকম উপাচার আছে, তার মধ্যে এই উপাচারটি আমার বিশেষ পছন্দ। আমি কোচকে বলেছিলাম বলেই তিনি এইটা করেছেন। এতে তার কোনও দোষ নেই।”

কিন্তু আন্তর্জাতিক জুডো ফেডারেশন কোন‌ও কথা শুনতে রাজি নয়। তাদের পরিষ্কার বক্তব্য ম্যাচ শুরুর আগে প্রতিযোগীর গায়ে হাত দেওয়াটা একজন কোচের অনভিপ্রেত আচরণ। ভবিষ্যতে যাতে এই আচরণ আর না হয় তার জন্য সতর্ক করে দেয় তারা। তবে এত বিতর্ক বলা যেতে পারে অকারণেই হয়েছে। কারণ জার্মানির মার্টিনা ত্রাজদস ওই ম্যাচে হাঙ্গেরির সজোফি ওজবাসের কাছে হেরে যান। এর ফলে অলিম্পিক থেকে বিদায় নিয়েছেন তিনি।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!