১৩ জুন, ২০২১রবিবার

১৩ জুন, ২০২১রবিবার

নিজেকে বিজেপির অনুগত সৈনিক বলে টুইট মুকুলের, দল ছাড়ার জল্পনা আপাতত ওড়ালেন

যাবতীয় জল্পনায় জল ঢালার উদ্যোগ নিলেন মুকুল রায়। গত দু’দিন ধরেই বাংলার রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে সদ্য নির্বাচিত এই বিজেপি বিধায়ক পুরনো দল তৃণমূলে ফিরে আসতে পারেন। এই পরিস্থিতিতে তিনি ট্যুইট করে যাবতীয় জল্পনা উড়িয়ে দিলেন। তার দাবি তিনি বিজেপির অনুগত সৈনিক হিসেবে নিজের রাজনৈতিক সংকল্পে অবিচল।

 

মুকুল রায় শুক্রবার বিধানসভার বিধায়ক হিসেবে শপথ নেন। কিন্তু শুরু থেকেই তার যেন কেটে গিয়েছিল! মুখ্যমন্ত্রী এবং রাজ্যের গুটিকয়েক ভিআইপি মন্ত্রী যে হাইকোর্ট গেট দিয়ে বিধানসভার মধ্যে ঢোকেন, সবাইকে অবাক করে দিয়ে মুকুল রায় সেই গেট দিয়েই শুক্রবার বিধানসভায় প্রবেশ করেছিলেন। কি করে এই বিষয়টা সম্ভব হল তা অনেকেই ভেবে উঠতে পারেননি। এরপর তিনি বিজেপির পরিষদীয় ঘরে না গিয়ে প্রথমে তৃণমূলের পরিষদীয় ঘরে প্রবেশ করেন। পরে সেখান থেকে বেরিয়ে শপথ নেওয়ার পর তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সীর সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন। এরপরই জল্পনা ছড়ায় তৃণমূলে ফেরার পথ প্রস্তুত করছেন তিনি।

আরও পড়ুন  
করোনা থেকে বাঁচতে প্রথমবারের মতো এবারেও জেল বন্দীদের মুক্তির নির্দেশ সর্বোচ্চ আদালতের

সেই জল্পনায় অবশ্য ঘৃতাহুতি নিজেই দিয়ে দেন মুকুল রায়। বিধানসভা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের বলেন, “মাঝে মাঝে কিছু সময় আসে যখন চুপ করে থাকতে হয়।” সেইসঙ্গে জানিয়ে দেন তার রাজনৈতিক বক্তব্য কিছুদিন পরেই সাংবাদিকদের ডেকে জানিয়ে দেবেন। এরপরে জল্পনা তীব্র হয় তবে কি মুকুল রায় বিজেপি ছাড়তে চলেছেন? বিধানসভায় দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে বিজেপির নবনির্বাচিত বিধায়করা বৈঠক করলেও সেই বৈঠকেও উপস্থিত ছিলেন মুকুল। যা জল্পনাকে দাবানলের রূপ দেয়।

 

মুকুল রায়ের বিজেপি ছাড়ার জল্পনা যখন ক্রমশ ডালপালা মেলছে সেই সময় তিনি ট্যুইটে লিখলেন, “আমি বিজেপির একনিষ্ঠ সৈনিক হিসেবে রাজ্যে গণতন্ত্রের শাসন ফিরিয়ে আনার বিষয়ে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। আমাকে নিয়ে যাবতীয় জল্পনা এবার বন্ধ হোক। আমার রাজনৈতিক পথ চলায় আমি সংকল্পবদ্ধ।”

আরও পড়ুন  
টানা তৃতীয়বার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার অধ্যক্ষ নির্বাচিত হলেন বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়

এই ট্যুইটের পর বিজেপির কেউ কেউ বলছেন মুকুল রায় পরিষ্কার করে দিলেন তিনি দলেই থাকছেন। উল্টোদিকে রাজনৈতিক মহলের একাংশের অভিমত কৌশলী মুকুল আসলে এভাবে পরিস্থিতি সামলে নিলেন। তিনি কখনোই হুট করে দলবদল করেন না, তার আগে যথেষ্ট পরিমাণে জমি প্রস্তুত করেন। এবারে বিধানসভা নির্বাচনের ফল বেরিয়েছে সবে। তাই যা করার এক্ষুনি হয়তো করবেন না। সময় নিয়ে কোন কিছু করতে গেলে আপাতত যে সময় কিনে নেয়াটাও জরুরি মুকুলের মতো ধুরন্ধর রাজনীতিবিদ ভালোমতোই জানেন।

 

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!