৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

৪ আগস্ট, ২০২১বুধবার

নাকের মধ্যে চপস্টিকের টুকরো ঢুকে অথচ কিছুই বুঝতে পারলেন না এই মহিলা!

নাকের মধ্যে সামান্য একটু বড় আকারের ধূলিকণা ঢুকলেই আমরা হেঁচে একসা হয়ে তাই। কেউ কেউ আবার কাপড় পেঁচিয়ে নাকের মধ্যে ঢুকিয়ে হ্যাঁচ্চো করেন। কারণ নাক বড়ই স্পর্শকাতর জায়গা। কিন্তু কোনদিন ভেবে দেখেছিলেন খাবার খাওয়ার চপস্টিকের দু’টো টুকরো একজনের নাকের মধ্যে এক সপ্তাহ ধরে ঢুকে থাকবে অথচ তিনি কিছুই বুঝতে পারবেন না? ঠিক এই ঘটনাটি ঘটেছে তাইওয়ানে। অবশেষে অস্ত্রোপচার করে চপস্টিকের টুকরো দু’টো বার করা হয়। এই আজব ঘটনা দেখে চিকিৎসকরাও অবাক। গত ২৪ জুন সে দেশের একটি স্বাস্থ্য বিষয়ক পত্রিকায় এই ঘটনাটি কেস স্টাডি আকারে প্রকাশিত হয়।

 

জানা গিয়েছে ২৯ বছর বয়সী তাইওয়ানের ওই মহিলা রাতে খাবার খেতে বসেছিলেন। কিন্তু ডিনার টেবিলে বোনের সঙ্গে সামান্য কথা কাটাকাটি হয়। তারপর খাওয়ার মধ্যেই তার বোন আচমকা চপস্টিক তুলে আক্রমণ করে। দুই বোনের মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ চপস্টিক নিয়ে ঢিসুম-ঢিসুম হয়। পরে পরিবারের বাকিরা তাদের সরিয়ে দেয়।

আরও পড়ুন
আমেরিকার জেলে বসেই জেলবন্দি অপরিচিত তরুণের সঙ্গে অবাক প্রেম নেদারল্যান্ডের তরুণীর!

পরের দিন সকালে ঘুম থেকে উঠে ওই ভদ্রমহিলার নাক থেকে সামান্য রক্ত বেরোয় এবং দেখেন তার চোখ হালকা ফুলে আছে। তিনি এক্সরে করেন। কিন্তু তাতে কিছু পাওয়া যায়নি। তারপর বাড়ি চলে আসেন। এরপর এক সপ্তাহ ধরে বেশ ভালোই ছিলেন। কিন্তু আচমকা তার নাকে অস্বস্তি হতে শুরু করে। তিনি আয়নায় ভালো করে লক্ষ্য করে দেখেন তার নাকের মধ্যে যেন ধূসর রঙের কি একটা ঢুকে আছে। এরপর আর ঝুঁকি নেননি, সোজা হাসপাতালে গিয়ে হাজির হন।

 

সিটি স্ক্যান করে দেখা যায় ওই ভদ্রমহিলার নাকের ভিতরের চপস্টিকের দু’টি টুকরো গেঁথে আছে। ৩.৫ এবং ৫ সেন্টিমিটারের ওই টুকরো দুটি তার মস্তিষ্কের সাইনাস অংশের ঠিক দোরগোড়ায় গিয়ে হাজির হয়েছে! চিকিৎসকরা জানান দ্রুত তার অস্ত্রোপচার করে এই চপস্টিক টুকরো দুটি বার করতে হবে। সেইমত ওই ভদ্রমহিলার অস্ত্রোপচার হয়। এরপর তিনি দিব্যি সুস্থ আছেন।

আরও পড়ুন
পুলিশকে হুমকী দিয়ে থানায় বসে চোখের জল ফেলে ভাইরাল দম্পতির ভিডিও

কিন্তু চিকিৎসকরা অবাক হয়ে গিয়েছেন গোটা ঘটনা দেখে। তাদের মতে একজন মানুষের নাকের ভিতর এইরকম বড়ো মাপের চপস্টিকের টুকরো ঢুকে থাকল আর তিনি বুঝতে পারলেন না এ ঘটনা বিরলের মধ্যে বিরলতম! অতএব আপনারাও সাবধান হয়ে যান। বাড়িতে মারামারি করার সময় ভঙ্গুর কিছু নিয়ে লড়াই করবেন না। কোথায় এইরকম বিপদ হয়ে যাবে, তখন আরেক কেলেঙ্কারি ঘটবে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

7,808FansLike
19FollowersFollow

Latest Articles

error: Content is protected !!